শুক্রবার (৫ মার্চ) টাঙ্গাইলের নাগরপুরে স্ত্রীর পরকীয়ার গুঞ্জন: দিনমজুরের লাশ উদ্ধার। স্বজনদের আহাজারি। ছবি: সংগৃহীত

নিউজ ডেস্ক: টাঙ্গাইলের নাগরপুরে স্ত্রীর পরকীয়ার কারণে স্ত্রীর সঙ্গে তার বনিবনা না হওয়ার মধ্যে মো. ছবেদ আলী (৪২) নামের এক দিনমজুরের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনার নেপথ্যে স্ত্রীর পরকীয়ার গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাগরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) বাহালুল খান বাহার।

শুক্রবার (৫ মার্চ) সকালে মামুদ নগর ইউনিয়নের চারাবাগ গ্রামের পরশ আলীর পুকুর থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। মৃত ছবেদ আলী উপজেলার গোপালপুর রান্ধুনি পাড়া গ্রামের রমেজ আলীর ছেলে। এক ছেলে ও এক মেয়ের জনক ছবেদ আলী বিয়ের পর থেকে চারাবাগ গ্রামে তার মামাশ্বশুর রাইজুদ্দিনের বাড়িতে বসবাস করতেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার ভোরে প্রতিদিনের ন্যায় ছবেদ আলী কাজের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়। সকাল ৭টার দিকে পরশ আলীর পুকুরে তার লাশ ভাসতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেয়। মৃত ব্যক্তির কপালে ও মাথায় রক্তক্ষরণ হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। এলাকাবাসীর ধারণা, কে বা কাহারা তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে লাশটি পুকুরে ফেলে গেছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জরিনা বেগম বলেন, মৃত ছবেদ আলী একজন দরিদ্র কৃষি শ্রমিক। আমার জানা মতে তার কোনো শত্রু ছিল না। তবে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে সম্পর্কের টানাপড়েন ছিল দীর্ঘ দিনের। এটি নিছক দুর্ঘটনা নাকি পরিকল্পিত হত্যা এনিয়ে এলাকায় গুঞ্জনের ঝড় বইছে বলেও জানান তিনি।

এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার ওসি মো. আনিসুর রহমান জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করা হয়েছে। এ ঘটনায় নিহত ছবেদ আলীর ছেলে আলমগীর হোসেন থানায় অভিযোগ করেছেন। তদন্তপূর্বক পরবর্তী আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।